শিরোনাম :

প্রচ্ছদ » সম্পাদকীয়

বিদেশিদের সংখ্যা নির্ধারণের শুভ উদ্যোগ

শুক্র, ০৫ ফেব্রুয়ারী'২০১৬, ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন


বিদেশিদের সংখ্যা নির্ধারণের শুভ উদ্যোগ   
বাংলাদেশে অনুমোদনহীন বা অবৈধভাবে চাকরিরত বিদেশিদের তথ্য সংগ্রহ করছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড। এসব বিদেশিদের ওপর কর আদায় মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার করতে ও অর্থ আইন ২০১৫ এর এ সংক্রান্ত আইনের বাস্তবায়নের কাজ শুরু করেছে এনবিআর।
বাংলাদেশে বিভিন্ন বেসরকারি বাণিজ্যিক ও শিল্প প্রতিষ্ঠানে দীর্ঘদিন থেকেই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিদেশিরা কাজ করে আসছেন। বিষয়টি সরকারের গোচরে থাকলেও এই বিদেশিদের সম্পর্কে কোনো সঠিক তথ্য সরকারের বিভাগসমূহে নেই। তাছাড়া এসব বিদেশির এ দেশে কাজ করার জন্য সরকার অনুমোদন বা ওয়ার্ক পারমিটও দেয়নি। কার্যত সম্পূর্ণ বেআইনিভাবেই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিদেশি এ দেশে কাজ করে যাচ্ছেন। দেরিতে হলেও জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এদের চিহ্নিত করার এবং ওয়ার্ক পারমিটের আওতায় আনার সিদ্ধান্তটি গুরুত্বপূর্ণ। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডেও বর্তমান উদ্যোগ থেকে বোঝা যায় এসব বিদেশি এতকাল ধরে এ দেশে কাজ করে অর্থ আয় করলেও তারা কোনো আয়কর দেন না। এটা জাতীয় রাজস্ব নীতিরও পরিপন্থী।
এখন প্রশ্ন হলো, কত সংখ্যক বিদেশি বাংলাদেশে অনুমোদনহীনভাবে কাজ করছেন এবং এর বিনিময়ে তারা কি পরিমাণ অর্থ এ দেশ থেকে নিয়ে যাচ্ছেন। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের বর্তমান সিদ্ধান্তটি সঠিকভাবে কার্যকর হলে জাতি এর প্রকৃত তথ্য সম্পর্কে অবগত থাকবে। পাশাপাশি এদের আয়ের ওপর কর আইন প্রয়োগ করা গেলে জাতীয় রাজস্ব খাতও সমৃদ্ধ হবে।
বিদেশিদের নিয়োগের কারণে বেসরকারি সংস্থাগুলো নিশ্চয় লাভবান হচ্ছে। উদ্বৃত্ত জনশক্তির এই দেশে সমসংখ্যক নাগরিকও দেশে তাদের কাজ করার সুযোগ হারাচ্ছেন। আমরা মনে করি শুধু কর আইন প্রয়োগ নয়, দেশীয় জনশক্তি যাতে এসব প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সুয়োগ পান সরকারের সে ব্যাপারেও ভূমিকা রাখা দরকার। তাহলে কর থেকে প্রাপ্ত অর্থ নয়, বিদেশিরা যে অর্থটি নিয়ে যাচ্ছেন সেটিও দেশে রাখা সম্ভব হবে। 




এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন

close