শিরোনাম :

প্রচ্ছদ » সাহিত্য

ত্রিশাখ জলদাস’র ছয়টি কবিতা

সোম, ০৪ এপ্রিল'২০১৬, ২:০৭ অপরাহ্ন


ত্রিশাখ জলদাস’র ছয়টি কবিতা  
গলে যাচ্ছে সময়, তার ভেতর থেকে উঠে আসছে হাওয়া।

------------ একটি মরা আরশোলা, আট দশটি পিঁপড়ে,
------------ কয়েক বিন্দু জল, আধ খাওয়া সিগারেট
------------দুটি উল্টানো গেলাশ...

একটি অপূর্ণ কবিতা রাফখাতা থেকে উঠে এসেছে,
আর কয়েকটি অক্ষর টুকরো টুকরো হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে।
দ্বিতীয় সংগীত
মৃত্যুর ভেতর একটি দেবদারু গাছ একা
ভেতর থেকে ক্রমাগত উপচে পড়ছে রক্ত...

জ্যোতির্ময় এক অন্ধ বালক 
হেঁটে যাচ্ছে দিকভ্রান্ত শূন্যতার দিকে…

আমরা পর্যাপ্ত বারুদ থেকেও কোন শিক্ষা নেই নি।

আকাশ থেকে নেমে আসছে অগ্নিগোলক
আমরা ঈশ্বরের অভিশাপ ভেবে মৌন থাকি।
মৌনতার ভেতর প্রচুর কোলাহল জমে থাকে,
তার মধ্যে রক্তপাত— চিৎকার 
অথচ আমরা কোন শব্দই শুনতে পাই না।

বস্তুত আমাদের আর্তনাদগুলো মস্তিষ্কের হিমঘরে খেলে করে…

আত্মহত্যার গান

পাতা ঝরার পর দেখি
----------------একটি অপূর্ণ বৃক্ষ
নিঃসঙ্গতার দিকে ঝুঁকে আছে আর
তার চারদিকে ডুবে যাচ্ছে ঈশ্বর।

মূলত অন্ধকার নেমে আসলে
ঈশ্বর পূর্ণ চাঁদ নিয়ে খেলা করে
------------------------তখন
শূন্যতাকে ছুঁয়ে থাকে জন্মান্ধ শূন্যতা

বস্তুত শূন্যতা কেবলই একটি সংখ্যা,
তাকে গুনে যাচ্ছি প্রবাহিত শূন্যতায়।


ভ্রম

রাত একটার ট্রেন এলে আমরা পরস্পর
-----------------বিচ্ছিন্ন হয়ে যাই আর স্টেশনটি
খণ্ডিত নিদ্রার ভেতর নিজেকে উন্মুক্ত করে দেয়।

তার স্তন যুগলে 
ক্রিয়াশীল শিল্পের মতো
দ্রুতলয়ে ছড়িয়ে যায় আলো।

বস্তুত আমরা সমুদ্রকে সবুজ দেখতে চাই
এবং মাছকে ভ্রমণরত বৃক্ষ মনে করি।


আনতগীত

শব্দ ঘুরে ঘুরে ফিরে যাচ্ছে
আর হাতের উপর খেলা করছে রোদ্দুর।

------------ও আমার বিষ্ণুপ্রিয়া 
--------- বহুদিন হয়নি যাওয়া
------------নদীর ওপারে 

নদীর ওপারে 
কৃষ্ণ অন্ধকার— পতিত জীবন
ক্ষয়ে যাওয়া জলস্রোত— পূর্ণ অন্ধ চাঁদ ।

আমি একটি নগ্ন কবিতায় শুয়ে আছি
আর স্নানঘর থেকে ক্রমাগত ডেকে যাচ্ছে রাধা।



ক্ষয়

বদলে যেতে যেতে খোলসটাই পড়ে আছে
------------------দৃশ্যমান কেউ নেই,
আর আমার ভেতর ক্রমাগত বিবর্তিত হচ্ছে মাটি।


হাওয়া এসে অস্তিত্বের কথা বলে গেল...


প্রাণের অস্তিত্ব দৃশ্যত যূথবদ্ধ,
তার বিপরীতে নিঃসঙ্গতা সর্প স্বভাবের।

আধ ভাঙা জল নদীতে জোড়া দিতে এসে দেখি মরে যাচ্ছে নদী … 




এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন

close