শিরোনাম :

প্রচ্ছদ » ইসলাম

রমজানের প্রস্তুতি স্বরূপ রাসুল (সা.) যে দোয়া বেশি পড়তেন

বুধ, ১৮ মে'২০১৬, ২:০৬ অপরাহ্ন


রমজানের প্রস্তুতি স্বরূপ রাসুল (সা.) যে দোয়া বেশি পড়তেন  
মানবতার মুক্তির কাণ্ডারি বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) ইসলামের খাদেম হওয়ার পর থেকে বেশিরভাগ সময় ইবাদাতে মশগুল থাকতেন। পুরো বছরের এমন কোনো মাস নেই যে, রাসুল (সা.)এর ইবাদাতের মধ্যে পার্থক্য পরিলক্ষিত হতো না। মাহে রমজানকে লক্ষ করে রজব মাস থেকেই আমলের মাঝে বেপক পরিবর্তণ লক্ষ করা যেতো। তিনি রজব, শাবান এবং রমজান মাসের জন্য খুব বেশি দোয়া করতেন মহান আল্লাহর নিকট।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার উম্মদের শিক্ষা দেয়ার জন্য রজব মাস থেকে আল্লাহর নিকট যেই দোয়াগুলাে বেশি পরিমাণে পাঠ করতেন তা এমটিনিউজ২৪-এর পাঠকতের জন্য তুলেধরা হলো। শাবান 

মাসে বেশি বেশি রোজা রাখার পাশাপাশি আল্লাহ তাআলা কাছে রমজানের ব্যাপারে সবচেয়ে বেশি প্রার্থনা করতেন। যা মুসলিম উম্মাহর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ আমল। কেননা রাসুল (সা.)এর জীবনই হলো তাঁর উম্মতের জন্য সর্বউত্তম আদর্শ।

রাসুলুল্লাহ্ মহান আল্লাহর নিকট রজব মাসে যে দোয়াটি বেশি বেশি পাঠ করতেন :

>> ‘আল্লাহুম্মা বারিক লানা ফি রজবা ওয়া শা’বান ওয়া বাল্লিগনা রামাদান।’

হযরত মুহাম্মদ (সা.) মহান আল্লাহর নিকট শাবান মাসে যেই দোয়াটি বেশি বেশি পাঠ করতেন :

>> ‘আল্লাহুম্মা বারিক লানা ফি শা’বান ওয়া বাল্লিগনা রামাদান।’

আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) মহান আল্লাহর নিকট রমজান মাসে যেই দোয়াটি বেশি বেশি পাঠ করতেন :

>> ‘আল্লাহুম্মা বাল্লিগনা রামাদান ওয়া আই’ন্না আ’লা সিয়ামিহি ওয়া ক্বিয়ামিহি।’

রাসুলুল্লাহ সাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাঁর উম্মাতকে এ দোয়া শিক্ষা দেয়ার উদ্দেশ্য ছিল- আল্লাহ তা'য়ালা যেন এ দোয়ার উসিলায় প্রত্যেকটি বান্দাকে রমজানের অফুরন্ত কল্যাণ লাভের সক্ষমতা দান করেন।

সুতরাং উম্মতে মুহাম্মদির উচিত, প্রত্যেক নামাজের পর এ দোয়ার মাধ্যমে বরকত লাভের কামনা করা। আল্লাহ তা'য়ালা সবাইকে শাবান মাসে বেশি বেশি রোজা রাখার এবং এ দোয়া করে বরকত লাভ করার তাওফিক দান করুন। আমিন। 




এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন

close